বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়ম


বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়ম এর বিষয়ে আজকের এই পোস্ট লেখার চেষ্টা করেছি। আপনার যারা বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করতে চান তারা এই পোস্টটি পড়তে পারেন।
আমাদের অনেক সময় বিভিন্ন কারণে বিকাশ একাউন্ট নাম্বার বদলানোর প্রয়োজন হয়।আপনি যদি বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন সংক্রান্ত জটিলতায় ভোগেন তাহলে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। এই পোস্টের মাধ্যমে আমি বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়ম জানতে পারবেন।

বিকাশ একাউন্ট নাম্বার বদলানোর প্রয়োজন হয় কেন ?

আপনি যে সিমে বিকাশ একাউন্ট খুলেছিলেন সেই সিমের বিকাশ একাউন্ট বিকাশ কতৃপক্ষ বন্ধ করে দিয়েছে অথবা আপনি আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার ভুলে গেছেন প্রভৃতি কারণে বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করা লাগতে পারে। এছাড়াও একাধিক সিমে একই NID কার্ড দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলা থাকলে আপনার সকল বিকাশ একাউন্ট বিকাশ কতৃপক্ষ বন্ধ করে দেবে।
আপনার যদি বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হয়ে যায় অবশ্যই বিকাশের হেল্পলাইনে তাদের কাস্টমার কেয়ারের সাথে যোগাযোগ করলে বিকাশ একাউন্ট কেনো বন্ধ হলো জানার জন্য কল করতে পারেন 16247 এই নাম্বারে। বিকাশ সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা সমাধানের জন্য বিকাশ হেল্পলাইন 24 ঘন্টা এবং সপ্তাহের 7 দিন খোলা থাকে । আপনি যদি কোনো বিকাশ একাউন্ট সম্পর্কে জানতে চান তাহলে ঐ বিকাশ একাউন্ট যে আপনারই তার সত্যতা যাচাই করতে চাইবে। এজন্য আপনার আইডি কার্ডে থাকা নাম ও আপনার এনআইডি কার্ডের নাম্বার চাইবে।
আপনার কাছ থেকে তাদের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টগুলো নেয়ার পরে নিশ্চিত হয়ে যাবে যে আসলেই এই বিকাশ একাউন্ট আপনার তখন আপনি তাদের কাছে সমস্যার কথা বলতে পারেন।
আপনি যদি আপনার পুরাতন বিকাশ একাউন্ট চালু করতে চান তাহলে কাস্টমার অফিসার যে ডকুমেন্টগুলো চাইবে আপনি যদি সঠিক দিতে পারেন তাহলে আপনার বিকাশ একাউন্ট চালু করে দিবে। আর আপনি যদি ডকুমেন্টগুলো সঠিকভাবে বলতে না পারেন তখন আপনাকে বলবে স্যার আমি দুঃখিত আপনার তথ্যগুলো মিলছে না। তখন আপনি নতুন একাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাইলে নিয়ম বলে দিবে।

আমি কিভাবে বিকাশ এর একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করেছি জেনে নিন –

আমি একাধিক বিকাশ একাউন্ট খুলেছিলেন তাই একে একে আমার সকল বিকাশ একাউন্ট বন্ধ হয়ে যায়। আমি বিকাশের হেল্পলাইনে তাদের কাস্টমার কেয়ারের সাথে যোগাযোগ করেও আমার একটি একাউন্টও চালু করতে পারি নাই। তখন বিকাশ হেল্পলাইনে ফোন করায় সেখান থেকে বললো আপনি নিকটস্থ বিকাশ সেন্টারে যোগাযোগ করুন। তারপর একদিন আমি আমার সকল ডকুমেন্ট নিয়ে বিকাশ অফিসে যাই। তখন বিকাশ সেন্টার থেকে আমাকে বললো আপনি আপনার NID কার্ড দিয়ে একটি বিকাশ একাউন্ট চালু করতে পারবেন।
আমি পুরাতন একাউন্টগুলোর কোনোটারই সঠিক তথ্য দিতে না পারায় পুরাতন কোনো একাউন্ট চালু করতে পারলাম না। কাস্টমার অফিসার আমাকে বললো আপনি যদি বিকাশ একাউন্ট চালু করতে চান তাহলে আপনার নামে রেজিষ্ট্রেশন করে নতুন একটি সিম নিয়ে আসুন। আমি তার কথামত নতুন একটি সিম নিয়ে এলাম এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টগুলো তার কাছে দিলাম। কাস্টমার ম্যানাজার আমাকে নতুন একটি বিকাশ একাউন্ট খুলে দিল আর বললো আপনার পূর্বের সকল বিকাশ একাউন্ট বন্ধ থাকবে।

এগুলো পড়তে পারেন —

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম ২০২১|বিকাশ একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম ২০২১
বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তন করার নিয়ম জেনে নিন
বিকাশ অ্যাপ প্রতি রেফারে ১০০ টাকা বোনাস
বিকাশ একাউন্ট নাম্বার পরিবর্তন করার নিয়
এই পোস্ট সম্পর্কে আপনাদের কোনো মতামত থাকলে কমেন্টে লিখতে পারেন। আপনাদের জরুরি প্রয়োজনে হলে সরাসরি আমার ফেসবুক পেজ এ মেসেজে করতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ

পোস্টটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *