নগদ-এ এখন প্রতি হাজার-এ ক্যাশ আউট চার্জ ৯ টাকা ৯৯ পয়সা

নগদ ক্যাশ আউট চার্জ – হাজারে ৯.৯৯ টাকা বিস্তারিত জেনে নিন


বাংলাদেশের সকল মোবাইল ব্যাংকিং কোম্পানিগুলোর ক্যাশ আউট চার্জ যখন ১৮ টাকা বা ১৮ টাকা ৫০ পয়সা তখন নগদ ক্যাশ আউট চার্জ প্রতি হাজার ৯ টাকা ৯৯ পয়সায় ক্যাশ আউট করার সুবিধা দিল।

নগদ ক্যাশ আউট চার্জ :

নগদ অ্যাপ থেকে ৯ টাকা ৯৯ পয়সা খরচ-এ প্রতি হাজারে ক্যাশ আউট করতে পারবেন আর *167# কোড ডায়াল করে ক্যাশ আউট করলে প্রতি হাজারে ১২ টাকা ৯৯ পয়সা খরচ হবে তবে ভ্যাট প্রযোজ্য।
 
নগদ অ্যাপ-এর মাধ্যমে ক্যাশ আউট চার্জ ভ্যাটসহ ১১.৪৯ টাকা এবং *167# কোড ডায়াল করে ক্যাশ আউট করলে ভ্যাটসহ ১৪.৯৪ টাকা খরচ হবে।
আপনি যেকোন পরিমাণ টাকা ক্যাশ আউট করতে পারবেন আপনার ক্যাশ আউট-এর টাকার আনুপাতিক হারে চার্জ প্রযোজ্য হবে।
 
বাংলাদেশের অন্যান্য মোবাইল ব্যাকিং কোম্পানির চেয়ে প্রতি হাজার-এ কত ক্যাশ আউট চার্জ কম নিচ্ছে নগদ তার তালিকা দেখুন।
 
অ্যাপ-এর ক্যাশ আউট চার্জ :
 
বিকাশ: প্রতি হাজার-এ ক্যাশ আউট চার্জ ১৭ টাকা ৫০ পয়সা।
রকেট: বিকাশ-এর মত রকেট অ্যাপ-এ ছাড় নেই তাই প্রতি হাজার-এ ক্যাশ আউট চার্জ ১৮ টাকা ক্যাশ আউট চার্জ ১১ টাকা ৪৯ পয়সা।
তাহলে এখন নিঃসন্দেহে বলা যায় বিকাশ-এর চেয়ে নগদ-এ ৬ টাকা কমে ক্যাশ আউট করতে পারবেন। অন্যদিকে রকেট-এর চেয়ে ৬ টাকা ৫১ পয়সা কমে ক্যাশ আউট করতে পারবেন।
 
ইউএসএসডি-তে অথাৎ কোড ডায়াল করে লেনদেন করলে ক্যাশ আউট চার্জ :
 
বিকাশ : কোড ডায়াল করে ক্যাশ আউট করলে প্রতি হাজার-এ ক্যাশ আউট চার্জ ১৮ টাকা ৫০ পয়সা।
রকেট: প্রতি হাজার-এ ক্যাশ আউট চার্জ ১৮ টাকা ৫০ পয়সা।
নগদ: প্রতি হাজার-এ ক্যাশ আউট চার্জ ১৪ টাকা ৯৪ পয়সা।
 
* 167# কোড ডায়াল করে লেনদেন করলে বিকাশ-এর চেয়ে নগদ-এ প্রতি হাজারে ৩ টাকা ৫৬ পয়সা খরচ কম লাগবে। অন্যদিকে রকেট-এর চেয়ে নগদ-এ প্রতি হাজারে ৩ টাকা ৬ পয়সা খরচ কম লাগবে।
 
কিভাবে নগদ-এ ক্যাশ আউট করব?
 
০১. নগদ এজেন্ট পয়েন্টে যান এবং এজেন্ট-এর কাছ থেকে তার এজেন্ট নাম্বার সংগ্রহ করুন।
০২. আপনার নগদ অ্যাপ লগইন করুন অথবা *167# ডায়াল করে “Cash-Out” অপশন সিলেক্ট করে এজেন্ট নাম্বার টাইপ করুন অথবা অ্যাপ থেকে ক্যাশ আউট করতে চাইলে QR কোড স্ক্যান করুন।
০৩. আপনি যে পরিমাণ টাকা ক্যাশ আউট করবেন সেই টাকার পরিমাণ টাইপ করুন।
০৫. আপনার পিন নাম্বারটি টাইপ করুন (আপনার পিন নাম্বারটি অবশ্যই গোপন রাখুন )।
৬. লেনদেনটি নিশ্চিত করুন
 
আপনার ক্যাশ-আউট সম্পূর্ণ হয়ে গেলে আপনি এবং এজেন্ট, দু’জনেই নগদের কাছ থেকে একটি কনফার্মেশন মেসেজ পাবেন।
 
আরও বিস্তারিত জানতে নগদ-এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন ।
নগদ-এর ওয়েবসাইট 

নগদ সেন্ড মানি চার্জ ও লিমিট :

নগদ থেকে কোড ডায়াল করে প্রতি সেন্ড করার জন্য ৫ টাকা কেটে নিবে।আর নগদ অ্যাপ থেকে সেন্ড মানি করার জন্য কোনো চার্জ কাটে না। নগদ সেন্ড মানি একদম ফ্রি। তবে বিকাশ ২০২১ সালে ৫টি প্রিয় নাম্বার যুক্ত করার সুযোগ দিয়েছে। এই নাম্বারগুলো যুক্ত করলে ২৫০০০ টাকা পর্যন্ত চার্জ ছাড়াই সেন্ড মানি করতে পারবেন। কিন্তু নগদ জানিয়ে আমাদের কাছে সবাই প্রিয়। সেজন্য নগদ থেকে ২,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত কোনো চার্জ ছাড়াই যেকোনো নগদ নাম্বারে সেন্ড মানি করতে পারবেন। নগদ থেকে দিনে ৫০ বারে ২৫০০০ টাকা সেন্ড মানি করতে পারবেন। আর মাসে ১০০ বারে ২,০০,০০০ টাকা পর্যন্ত সেন্ড মানি করতে পারবেন।

নগদ মোবাইল রিচার্জ চার্জ ও লিমিট :

নগদ থেকে মোবাইল রিচার্জ একদম ফ্রি।আবার কোনো কোনো সময় নগদ ক্যাশব্যাক অফার ঘোষণা করে মোবাইল রিচার্জ করার জন্য । নগদ থেকে প্রতি রিচার্জে ১০ টাকা থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত একবারে রিচার্জ করতে পারবেন। দৈনিক ৫০ বারে ১০,০০০ টাকা মোবাইল রিচার্জ করা যায়। প্রতি মাসে ১৫০০ বারে ১,০০০০ টাকা পর্যন্ত নগদ থেকে যেকোনো সিমে রিচার্জ করতে পারবেন।

এগুলো পড়তে পারেন –

নগদ ক্যাশ আউট চার্জ – হাজারে ৯.৯৯ টাকা বিস্তারিত জেনে নিন
বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ ২০২১|BKash Cash Out Charge 2021| বিকাশ লিমিট
রকেট ক্যাশ আউট চার্জ (Rocket Cash Out Charge) ও রকেট লিমিট সম্পর্কে জানুন
বিকাশ অ্যাপ রেফার করে আয় ২০২১ – কিভাবে করবেন জেনে নিন
বিকাশ অ্যাপ থেকে বিল পরিশোধ করে তথ্য সেভ করলেই ১০ টাকা ক্যাশব্যাক বোনাস
এই পোস্ট সম্পর্কে আপনাদের কোনো মতামত থাকলে কমেন্টে লিখতে পারেন আমি জবাব দেওয়ার চেষ্টা করবো।
পোস্টটি ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না


Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *